প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ ও ফলাফল?

হ্যালো, আজকে আমরা প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ ও ফলাফল নিয়ে আজকের এই পোস্টে বিস্তারিত আলোচনা করছি । মাধ্যমিক এর এই প্রশ্নটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রশ্নটি পরীক্ষায় বারবার ই আসে তাই প্রশ্নটি ভালো করে পড়ুন এবং খাতায় লিখে রাখুন ।

এর আগের পোস্টে আমরা প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রকৃতি আলোচনা কর? প্রশ্নটি আলোচনা করেছিলাম ।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ ও ফলাফল

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ

অস্ট্রিয়ার যুবরাজ ফার্দিনান্দ ও তার স্ত্রী ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দের ২৮ জুন বসনিয়ার রাজধানী সেরাজেভো পরিদর্শনে গেলে ফার্দিনান্দ ও তার স্ত্রী দুজনেই বসনিয়াতে নিহত হন । এই হত্যাকাণ্ডে সার্বিয়ার ইন্ধন আছে বলে সন্দেহ করা হয় এবং অভিযোগ স্বরুপ অস্ট্রিয়া সার্বিয়াকে এক চরমপত্র দেন-

এই চরমপত্রে দাবী করা হয় –
১) অস্ট্রিয়ার দুইজন কর্মচারীকে সার্বিয়াতে ফার্দিনান্দ ও তার স্ত্রীর মৃত্যুর তদন্তের সুযোগ দিতে হবে ।

২) সার্বিয়াকে এই হত্যাকাণ্ডের নিন্দা করতে হবে ।

৩) সর্বোপরি সার্বিয়া সরকারকে অস্ট্রিয়া বিরোধী প্রচার বন্ধ করতে হবে ।

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ফলাফল

১৯১৪ থেকে ১৯১৮ সাল পর্যন্ত চলা এই বিশ্বযুদ্ধ মানবসভ্যতার ইতিহাসে এক চরম সংকট সৃষ্টি করে ।

১) ব্যাপক জীবনহানি- প্রথম বিশ্বযুদ্ধ ছিল খুবই ভয়ানক, বলা হয় এই রকম ব্যাপক বিধ্বংসী যুদ্ধ বিশ্ববাসী এর আগে কখনও দেখেছিল না । এই যুদ্ধের ফলে ব্যাপক জীবনহানি ঘটে । বলা হয় যে, বিশ্বের প্রায় দুই তৃতীয়াংশ মানুষ এই যুদ্ধে যোগদান করেছিল এবং পূর্বের অন্যান্য যুদ্ধের তুলনায় এই যুদ্ধে দ্বিগুন প্রাণহানি হয় । প্রায় ২৩ লক্ষ সেনা নিহত ও ৭০ লক্ষ সেনা আহত হয় ।

২) মার্কিন শক্তির উদ্ভব- প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর বিশ্বের দুই মহাশক্তি রূপে উদ্ভব হয় দুই রাষ্ট্রের মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়ন এর । মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সোভিয়েত ইউনিয়ন পরবর্তী দুই দশক পর্যন্ত ইউরোপের নিয়ন্ত্রণে বিশেষ ভাবে আংশগ্রহণ করে । বিশ্ব

৩) ইঙ্গ-ফ্রান্স এর পতন- প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পূর্বে ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স ছিল প্রচুর সম্পদ ও শক্তির অধিকারী, বিশ্বযুদ্ধে ইংল্যান্ড ও ফ্রান্স দুই রাষ্ট্রই প্রচুর ক্ষতির সম্মুখীন হয় যার ফলে আন্তর্জাতিক মহলে তারা অপেক্ষাকৃত দুর্বল শক্তিতে পরিণত হয় । ফ্রান্স এই যুদ্ধে জয়ী হলেও প্রচুর ক্ষতির সম্মুখীন হয় ।

৪) জার্মানিতে প্রজাতন্ত্র স্থাপন- প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ফলে জার্মানিতে দারুন প্রতিক্রিয়া দেখা দেয় । এই যুদ্ধের পর জার্মানির নব প্রতিষ্ঠিত প্রজাতন্ত্রী সরকার জার্মানিতে শাসন স্থাপন করতে অক্ষম হয় । হিটলার জার্মান প্রজাতন্ত্রকে উচ্ছেদ করে জার্মানির ওপর নাৎসি একনায়কতন্ত্র স্থাপন করেন ।

৫) ঔপনিবেশিক শাসনের অবসান- প্রথম বিশ্বযুদ্ধে ব্রিটিশ শক্তি জার্মানির আক্রমণ দ্বারা ক্ষতিগ্রস্থ হলে ব্রিটিশ উপনিবেশ গুলিতে স্বাধীনতা আন্দোলন জোরদার হয় । ভারতবর্ষে মহাত্মা গান্ধীর নেতৃত্বে ১৯২০ খ্রিস্টাব্দে অহিংস অসহযোগ আন্দোলন এর শুরু হয় । ভারতবর্ষের আন্দোলনে কেন্দ্র করে ঔপনিবেশিক দেশগুলি তেও মুক্তি আন্দোলনের সূচনা হয় । যার ফল স্বরুপ ঔপনিবেশিক শাসন এর অবসান হয় ।

৬) জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠা- প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ধ্বংসলীলা মানুষকে শান্তি ও নিরাপত্তার দিকে উন্মুক্ত করে । আন্তর্জাতিক স্তরে শান্তি রক্ষার জন্য লীগ অব নেশনস বা জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠা হয় ।

আরও পড়ুন-

প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রকৃতি আলোচনা কর?

একশালা বন্দোবস্ত কি? ত্রুটি ও ফলাফল আলোচনা কর?

স্বাধীনতা আন্দোলনে নেতাজী সুভাষচন্দ্র বসুর ভূমিকা

1 thought on “প্রথম বিশ্বযুদ্ধের কারণ ও ফলাফল?”

Leave a Comment