বায়ুমণ্ডল ( দ্বিতীয় অধ্যায় ) দশম শ্রেণী

বায়ুমণ্ডল দশম শ্রেণী প্রশ্ন ও উত্তর

বায়ুমন্ডল কাকে বলে ?

পৃথিবীর মাধ্যাকর্ষণ শক্তির টানে ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১০,০০০ কিমি উচ্চতা পর্যন্ত বিস্তৃত যে অদৃশ্য গ্যাসীয় আবরণ পৃথিবীকে বেষ্টন করে আছে, তাকে বায়ুমণ্ডল বলে । বায়ুমণ্ডল না থাকলে পৃথিবীতে উদ্ভিদ ও প্রাণীজগৎ কিছুই সৃষ্টি হত না । ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১০,০০০ কিমি পর্যন্ত বাতাসের অস্তিত্ব থাকলেও ৯৭ ভাগ বাতাস আছে ৩০ কিমির মধ্যে । বিভিন্ন ধরণের গ্যাসীয় উপাদানের মধ্যে বায়ুমণ্ডলে সবচেয়ে বেশি আছে নাইট্রোজেন (প্রায় ৭৮.০৮ শতাংশ ), অক্সিজেন (প্রায় ২০.৯৪ শতাংশ) । এছাড়া আর্গন, হিলিয়াম, কার্বন – ডাই – অক্সাইড হাইড্রোজেন, মিথেন, নিয়ন, জেনন , ওজন প্রভৃতি গ্যাসীয় উপাদান বায়ু মণ্ডলে খুব অল্প পরিমাণে আছে । এছাড়াও ধূলিকণা এবং জলীয় বাস্প ও বায়ুমণ্ডলে আছে ।

বায়ুমণ্ডলের উপাদান গুলি কি কি ?

বায়ুমণ্ডলে তিন ধরণের উপাদান রয়েছে । ১) গ্যাসীয় উপাদান ২) জলীয় বাষ্প এবং ৩) ধূলিকণা

১। গ্যাসীয় উপাদান – বায়ুমণ্ডলের গ্যাসীয় উপাদান গুলির মধ্যে নাইট্রোজেন এবং অক্সিজেন ই প্রধান । এই দুটি গ্যাস ছাড়াও বায়ুমণ্ডলে খুব অল্প মাত্রায় আর্গন, কার্বন ডাই অক্সাইড, হিলিয়াম, জেনন, মিথেন, নিয়ন প্রভৃতি গ্যাস আছে ।

২ । জলীয় বাষ্প – গ্যাসীয় উপাদানগুলির পাশাপাশি বায়ুমণ্ডলে কিছু পরিমাণে জলীয় বাষ্প ও থাকে ।

৩ । ধূলিকণা – বায়ুমণ্ডলের নীচের স্তরে ধূলিকণার পরিমাণ ও ঘনত্ব সবচেয়ে বেশি । উচ্চতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এর ঘনত্ব এবং পরিমাণও কমে যায় ।

Earth Atmosphere (পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল)

ট্রপোপজ কাকে বলে ?

বায়ুমণ্ডলের একেবারে নীচের স্তরের নাম ট্রপোস্ফিয়ার । এই ট্রপোস্ফিয়ারের ঊর্ধ্বসীমায় যেখানে তাপমাত্রা কমেও না বাড়েও না অর্থাৎ প্রায় ধ্রুবক থাকে, তাকে ট্রপোপজ বলা হয় । ট্রপোস্ফিয়ারের ওপরে ট্রপোপজের বিস্তৃতি প্রায় আড়াই থেকে তিন কিলোমিটার । এই স্তরে বায়ুর তাপমাত্রা থাকে হিমাঙ্কের নীচে প্রায় -57 ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে -60 ডিগ্রি সেলসিয়াস

প্রবল গতি সম্পন্ন ‘জেট স্ট্রিম ‘ এই স্তরের মধ্য দিয়েই প্রবাহিত হয় ।

স্ট্রাটোস্ফিয়ার কাকে বলে ?

ট্রপোপজের ওপরে যে বায়ুস্তর আছে তার নাম স্ট্রাটোস্ফিয়ার । ট্রপোপজের ঊর্ধ্বে ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৫০ কিমি উচ্চতা পর্যন্ত এই স্ট্রাটোস্ফিয়ার বিস্তৃত । এই স্তরের মধ্য দিয়ে যতই ওপরে ওঠা যায় তাপমাত্রা ক্রমশ বাড়তে থাকে এবং প্রায় ৫০ কিমি উচ্চতায় বায়ুর তাপমাত্রা প্রায় -4 ডিগ্রি সেলসিয়াস এর সামান্য বেশি হয় । স্ট্রাটোস্ফিয়ার এর মধ্যে তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ার প্রধান কারণ – বায়ুমণ্ডলের এই অংশে ওজন স্তরের অস্তিত্ব । ওজন স্তরের জন্য শুধু যে তাপমাত্রা বাড়ে তাই নয় , সূর্য থেকে যেসব ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মি বিচ্ছুরিত হয় সেগুলিকেও শোষিত করে ভূপৃষ্ঠে আসতে দেয় না ।

মেসোস্ফিয়ার কি ?

স্ট্রাটোস্ফিয়ার এর ওপরে প্রায় ৪০ কিলোমিটার উচ্চতা পর্যন্ত বিস্তৃত স্তরকে মেসোস্ফিয়ার বলে । এই স্তরে উচ্চতা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে তাপমাত্রা কমতে থাকে । মেসোস্ফিয়ার এর ঊর্ধ্বসীমায় বায়ুর তাপমাত্রা থাকে প্রায় -৯৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস । মহাকাশ থেকে যেসব উল্কা পৃথিবীর দিকে ছুটে আসে, সেগুলি এই মেসোস্ফিয়ার এর মধ্যে এসে পুড়ে ছায় হয়ে যায় । মেসোস্ফিয়ার এর ঊর্ধ্বসীমা কে বলে মেসোপোজ ।

মেসোপোজ কাকে বলে ?.

মেসোস্ফিয়ার এর উপরে যে অঞ্চলে তাপমাত্রা হ্রাস পাওয়া বন্ধ হয়ে যায়। সে অঞ্চলকে মেসোপোজ বলে। এ অঞ্চলের গড় তাপমাত্রা থাকে প্রায় 100° সেন্টিগ্রেড।

বায়ুমণ্ডল এর ওজন কত ?

বায়ুমণ্ডলের মোট ওজন প্রায় ৯০৪৬ হাজার কোটি টন । এর মধ্যে শুষ্ক বায়ুর পরিমাণ প্রায় ৫,৬০০ কোটি টন এবং জলীয় বাষ্পের পরিমাণ প্রায় ১৪৬ হাজার কোটি টন ।

অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন ও উত্তর –

1 ) বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের পরিমাণ কত ?

উত্তর – বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের পরিমাণ প্রায় ২০.৯৪ শতাংশ ।

2 ) বায়ুমণ্ডলের প্রধান গ্যাসীয় উপাদানটির নাম কি ?

উত্তর – নাইট্রোজেন

3 ) বায়ুমণ্ডলে শতকরা কত ভাগ নাইট্রোজেন আছে ?

উত্তর – বায়ুমণ্ডলে শতকরা নাইট্রোজেন ৭৮.০৮ শতাংশ

4 ) ট্রপোস্ফিয়ার ঊর্ধ্বসীমাকে কি বলে ?

উত্তর – ট্রপোস্ফিয়ার এর ঊর্ধ্বসীমাকে বলে ট্রপোপজ

5 ) বায়ুমণ্ডলের সর্বশেষ স্তর টির নাম কি ?

উত্তর – বায়ুমণ্ডলের সর্বশেষ স্তর টির নাম এক্সোস্ফিয়ার 

6 ) বায়ুমণ্ডলের সরবনিম্ন স্তরটির নাম কি ?

উত্তর – বায়ুমণ্ডলের সরবনিম্ন স্তরটির নাম ট্রপোস্ফিয়ার

7 ) কোন স্তরের জন্য সূর্যের ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মি ভূপৃষ্ঠে পৌঁছাতে পারে না ?

উত্তর – ওজোন স্তরের জন্য সূর্যের ক্ষতিকারক অতিবেগুনি রশ্মি ভূপৃষ্ঠে পৌঁছাতে পারে না ।

8 ) বায়ুমণ্ডলের কোন স্তরের মধ্যে মেঘ ঝড় ইত্যাদির সৃষ্টি হয় ?

উত্তর – বায়ুমণ্ডলের স্ট্রাটোস্ফিয়ার এ ঝড় মেঘ ইত্যাদি সৃষ্টি হয়

9 ) মেসোস্ফিয়ার এর ঊর্ধ্বসীমা কে কি বলে ?

উত্তর – মেসপোজ

10 ) বায়ুমণ্ডল ভূ – পৃষ্ঠ থেকে ওপরের দিকে কতদূর পর্যন্ত বিস্তৃত ?

উত্তর – ওপরের দিকে প্রায় ১০ , ০০০ কিমি পর্যন্ত বিস্তৃত

11 ) বায়ুমন্ডলের সর্বোচ্চ স্তর কোনটি ?

উত্তর – বায়ুমন্ডলের সর্বোচ্চ স্তরটি হল ম্যাগনেটোস্ফিয়ার

12 ) বায়ুমন্ডলে কার্বন-ডাই-অক্সাইডের স্বাভাবিক পরিমাণ কত ?

উত্তর – বায়ুমন্ডলে কার্বন-ডাই-অক্সাইডের স্বাভাবিক পরিমাণ ০.০৩ শতাংশ

13 ) ট্রপোপজের বায়ুমন্ডলের কোথায় অবস্থান করেছে ?

উত্তর – বায়ুমন্ডলের ট্রপোস্ফিয়ার ও স্ট্র্যাটোস্ফিয়ারের সংযোগস্থল হল ট্রপোপজের অবস্থান

14 ) জেট বিমানগুলি বায়ুমন্ডলের কোন স্তরের মধ্য দিয়ে যাতায়াত করে ?

উত্তর – জেট বিমান গুলি বায়ুমণ্ডলের স্ট্র্যাটোস্ফিয়ার স্তর দিয়ে যাতায়াত করে ।

15 ) বায়ুমন্ডলের কোন গ্যাস জলবায়ু নিয়ন্ত্রনে ভূমিকা পালন করে ?

উত্তর – বায়ুমণ্ডলের কার্বন- ডাই – অক্সাইড গ্যাস জলবায়ু নিয়ন্ত্রনে ভূমিকা পালন করে ।

আরও পড়ুন – হিমবাহের ক্ষয়কার্যের ফলে সৃষ্ট ভূমিরূপ ছবি সহ

সম্পূর্ণ বিনামূল্যে পড়াশুনা করার জন্য আমাদের টেলিগ্রাম গ্রুপে যুক্ত হন

Leave a Comment