সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ MCQ & SAQ (রাষ্ট্রবিজ্ঞান ক্লাস 12)

হ্যালো বন্ধুরা, আজকে আমরা রাষ্ট্রবিজ্ঞান ক্লাস 12 এর সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ অধ্যায় থেকে সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ MCQ & SAQ প্রশ্নের উত্তরগুলি বিস্তারিত ভাবে আলোচনা করছি । সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ একটি খুব গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় এবং এই অধ্যায় থেকে পরীক্ষাতে প্রচুর প্রশ্ন এসে থাকে । উত্তরগুলি ভালোভাবে তোমরা পড়ে নাও এবং বন্ধুদের সাথে ও শেয়ার করুন ।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ MCQ & SAQ (রাষ্ট্রবিজ্ঞান ক্লাস 12)

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ (রাষ্ট্রবিজ্ঞান ক্লাস 12)

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ কখন হয়?

প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয় ১৯১৪ খ্রিস্টাব্দে এবং শেষ হয় ১৯১৯ খ্রিস্টাব্দে।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ কবে শুরু হয়?

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হয় ১৯৩৯ খ্রিস্টাব্দের ১ সেপ্টেম্বর।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ কবে শেষ হয়?

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হয় ১৯৪৫ খ্রিস্টাব্দে ।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ কবে প্রতিষ্ঠিত হয়?

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর বিশ্বে স্থায়ী শান্তি রক্ষার উদ্দ্যেশ্যে ১৯৪৫ খ্রিস্টাব্দের ২৪ শে অক্টোবর সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ প্রতিষ্ঠিত হয় ।

জাতিসংঘ কবে প্রতিষ্ঠিত হয় ?

১৯১৯ খ্রিস্টাব্দে জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠিত হয় ।

জাতিসংঘের পতন কবে ঘটে ?

১৯৩৯ খ্রিস্টাব্দের ১ লা সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হলে জাতিসংঘের পতন ঘটে ।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের পূর্বসূরি প্রতিষ্ঠানটির নাম কী?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের পূর্বসূরি প্রতিষ্ঠানটির নাম হল জাতিসংঘ বা লিগ অফ নেশন্স।

আটলান্টিক সনদ কত খ্রিস্টাব্দে স্বাক্ষরিত হয়?

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল এবং মার্কিন রাষ্ট্রপতি ফ্র্যাঙ্কলিন ডি রুজভেল্টের মধ্যে ১৯৪১ খ্রিস্টাব্দের ১৪ আগস্ট আটলান্টিক সনদ স্বাক্ষরিত হয়।

চার্চিল ও রুজভেল্ট কোন যুদ্ধজাহাজে মিলিত হন?

প্রিন্স অফ ওয়েলস নামক যুদ্ধজাহাজে চার্চিল ও রুজভেল্ট মিলিত হন।

আটলান্টিক সনদে ক-টি নীতি ঘােষিত হয়?

আটলান্টিক সনদে আটটি নীতি ঘােষিত হয়।

United Nations শব্দটি প্রথম কে ব্যাবহার করেন এবং কোথায় ব্যবহৃত হয়?

United Nations শব্দটি ১৯৪২ খ্রিস্টাব্দে ওয়াশিংটন সম্মেলনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট রুজভেল্ট ব্যবহার করেন।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের ঘােষণা কী?

মার্কিন রাষ্ট্রপতি রুজভেল্ট, সোভিয়েত প্রতিনিধি মাকসিস লিটভিনভ, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী চার্চিল এবং চিনের প্রতিনিধি টি ভি সুঙ, ১৯৪২ খ্রিস্টাব্দের ১ জানুয়ারি ওয়াশিংটনে মিলিত হয়ে একটি দলিলে স্বাক্ষর করেন। এই দলিলটি ওয়াশিংটন ঘােষণা বা সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের ঘােষণা নামে পরিচিত।

তেহরান ঘােষণা কী?

মার্কিন রাষ্ট্রপতি রুজভেল্ট, পূর্বতন সোভিয়েত ইউনিয়নের রাষ্ট্রপ্রধান স্তালিন, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী চার্চিল তেহরানে সমবেত হন। তারা ১৯৪৩ খ্রিস্টাব্দের ১ ডিসেম্বর একটি ঘােষণাপত্র স্বাক্ষর করেন, যেটি বিশ্ব-ইতিহাসে তেহরান ঘােষণা নামে পরিচিত।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ দিবস রূপে বছরের কোন্ দিনটি পালিত হয়?

প্রতি বছর ২৪ অক্টোবর দিনটি সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ দিবস রুপে পালিত হয়।

জাতিপুঞ্জের অন্যতম সদস্য রাষ্ট্রের নাম কী?

জাতিপুঞ্জের অন্যতম সদস্যরাষ্ট্র হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

জাতিপুঞ্জের সনদের ১নং ধারায় কী বলা হয়েছে?

জাতিপুঞ্জের সনদের ১নং ধারায় বলা হয়েছে পৃথিবীকে যুদ্ধের হাত থেকে রক্ষা করতে জাতিপুঞ্জের দৃঢ় সংকল্পবদ্ধ।

জাতিপুঞ্জের সনদের ২নং ধারায় কী বলা হয়েছে?

জাতিপুঞ্জের সনদের ২নং ধারায় জাতিপুঞ্জের মূল নীতিগুলি লিপিবদ্ধ করার কথা বলা হয়েছে।

কাকে ‘বিশ্ব পার্লামেন্ট’ বলা হয়?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের সাধারণ সভাকে বিশ্ব পার্লামেন্ট বলা হয়।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের দুটি মূল লক্ষ্য লেখাে।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের লক্ষ্যগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল – (১) আগামী দিনের যুদ্ধের বিধ্বংসী রূপ থেকে বিশ্বকে রক্ষা করা। (২) সামাজিক প্রগতি ও ব্যাপকতর অবাধ পরিবেশের মধ্য থেকে জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন করা।

জাতিপুঞ্জের দুটি উদ্দেশ্য লেখাে।

জাতিপুঞ্জের উদ্দেশ্যগুলির মধ্যে উল্লেখযােগ্য হল— (১) যৌথ আত্মনির্ভরশীলতা ও সদস্যরাষ্ট্রের স্বাধীনতা রক্ষা করে, (২) মানুষের মানবিক অধিকার ও মৌল স্বাধীনতা গুলি প্রতিষ্ঠা ও রক্ষা করা।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের কটি অঙ্গ আছে?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের ৬টি অঙ্গ বা সংস্থা আছে।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের যে-কোনাে চারটি অঙ্গের নাম উল্লেখ করাে।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের চারটি অঙ্গের নাম হল – (১) সাধারণ সভা, (২) নিরাপত্তা পরিষদ, অর্থনৈতিক (৩) সামাজিক পরিষদ এবং (৪) অছি পরিষদ।

সাধারণ সভায় প্রতিটি সদস্য রাষ্ট্র কতজন প্রতিনিধি পাঠাতে পারে?

সাধারণ সভায় প্রতিটি সদস্য রাষ্ট্র অনধিক ৫ জন প্রতিনিধি পাঠাতে পারে।

বর্তমানে সাধারণ সভার মােট সদস্য সংখ্যা কত?

বর্তমানে সাধারণ সভার মােট সদস্য সংখ্যা হল ১৯৩।

সাধারণ সভায় সভাপতি ও সহ-সভাপতিরা কখন নির্বাচিত‌ হয়?

প্রতি বছর অধিবেশন শুরু হওয়ার পূর্বে সাধারণ সভায় সভাপতি এবং সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়।

শান্তির জন্য সম্মিলিত হওয়ার প্রস্তাব কত খ্রিস্টাব্দে গৃহীত হয়?

শান্তির জন্য সম্মিলিত হওয়ার প্রস্তাব ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দে গৃহীত হয় ।

সাধারণ সভায় প্রতিটি সদস্য রাষ্ট্র কটি করে ভোট দিতে পারে?

সাধারণ সভায় ক্ষুদ্র, বৃহৎ প্রতিটি সদস্যরাষ্ট্র প্রতিটি বিষয়ে মাত্র একটি করে ভােট দিতে পারে।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের সাধারণ সভার বার্ষিক অধিবেশন কবে বসে?

সাধারণ সভার বার্ষিক অধিবেশন প্রতি বছর সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় মঙ্গলবার বসে।

সাধারণ সভাকে বিশ্বের নাগরিক সভা বলা হয় কেন?

সাধারণ সভা বিশ্বের সকল স্বেচ্ছাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র নিয়ে গঠিত, যেখানে বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তের মানবজাতির নানা সমস্যা ও ভাবনার কণ্ঠস্বর ধ্বনিত ও প্রতিফলিত হয়। এই কারণে অধ্যাপক গেটেল সাধারণ সভাকে বিশ্বের নাগরিক সভা বলেছেন।

শান্তির জন্য ঐক্য প্রস্তাবের অর্থ কী?

শান্তির জন্য ঐক্য প্রস্তাবের অর্থ হল ভেটো প্রয়ােগের ফলে নিরাপত্তা পরিষদ শান্তি ও নিরাপত্তা রক্ষায় নিজ দায়িত্ব পালনে অসমর্থ হলে সাধারণ সভা সেই দায়িত্ব পালন করবে। ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দের ৩ নভেম্বর এই প্রস্তাবটি জাতিপুঞ্জে গৃহীত হয়।

কোন্ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সাধারণ সভায় প্রথম শান্তির জন্য ঐক্য প্রস্তাব গৃহীত হয়?

কোরিয়া সমস্যাকে কেন্দ্র করে ১৯৫০ খ্রিস্টাব্দের ৩ নভেম্বর সাধারণ সভায় শান্তির জন্য ঐক্য প্রস্তাব গৃহীত হয়।

জাতিপুঞ্জের প্রধান চালিকা শক্তি কোনটি?

জাতিপুঞ্জের প্রধান চালিকা শক্তি হল নিরাপত্তা পরিষদ।

নিরাপত্তা পরিষদ কাদের নিয়ে গঠিত?

নিরাপত্তা পরিষদ ৫ জন স্থায়ী এবং ১০ জন অস্থায়ী সদস্যকে নিয়ে গঠিত।

বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য সংখ্যা কত?

বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদে ৫টি স্থায়ী এবং ১০টি অস্থায়ী অর্থাৎ ১৫ টি সদস্য রাষ্ট্র আছে।

নিরাপত্তা পরিষদে কোন্ কোন দেশের ভেটো প্রয়ােগের ক্ষমতা আছে?

নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচটি স্থায়ী সদস্যরাষ্ট্র যথা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, ফ্রান্স, রাশিয়া ও চিনের ভেটো প্রয়ােগের ক্ষমতা রয়েছে।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের যে-কোনাে দুটি স্থায়ী সদস্য রাষ্ট্রের নাম লেখাে।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য রাষ্ট্রগুলির মধ্যে উল্লেখযােগ্য হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন।

নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতিরা কত দিনের জন্য নির্বাচিত হন?

নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি এক মাসের জন্য নির্বাচিত হন।

নিরাপত্তা পরিষদের প্রথম অধিবেশন কবে বসে?

১৯৪৬ খ্রিস্টাব্দের ১৭ জানুয়ারি প্রথম নিরাপত্তা পরিষদের অধিবেশন বসে।

নিরাপত্তা পরিষদের ভেটো ক্ষমতা কী?

নিরাপত্তা পরিষদের যে-কোনাে স্থায়ী সদস্যের কার্যবিধি সংক্রান্ত বিষয়ে নেতিবাচক ভােটকে ভেটো বলা হয়ে থাকে।

আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তা রক্ষায় জাতিপুঞ্জের ব্যর্থতার দুটি দৃষ্টান্ত দাও।

আন্তর্জাতিক শান্তি ও নিরাপত্তা রক্ষায় জাতিপুঞ্জের ব্যর্থতার দুটি দৃষ্টান্ত হল – (১) ২০০১-২০০২ খ্রিস্টাব্দে আফগানিস্তানের নিরীহ জনগণের উপর মার্কিন সেনাদের বেপরােয়া বোমাবর্ষণ, (২) সন্ত্রাসবাদকে প্রশ্রয় দেওয়ার অছিলায় প্যালেস্টাইনের উপর ইজরায়েলি সেনাবাহিনী ব্যাপক বোমাবর্ষণ প্রভৃতি ক্ষেত্রে নিরাপত্তা পরিষদ শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় ব্যর্থ হয়েছে।

UNO-এর পুরাে নাম কী?

UNO-এর পুরাে নাম হল United Nations Organization।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের স্থায়ী সচিবালয় কোথায় অবস্থিত?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের স্থায়ী সচিবালয় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে অবস্থিত

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের বর্তমান মহাসচিবের নাম কী?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের বর্তমান মহাসচিব নির্বাচিত হয়েছেন অ্যান্তোনিও গুতেরেস (২০১৭ খ্রিস্টাব্দ)

জাতিপুঞ্জের মহাসচিবের দুটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ উল্লেখ করাে।

(১)জাতিপুঞ্জের বার্ষিক আয় ব্যয় বা বাজেট প্রস্তুত করেন, (২) বিভিন্ন কমিশন ও কমিটি গঠন ও সাধারণ সভা আহ্বান প্রভৃতি কার্য সম্পাদন করেন।

জাতিপুঞ্জের মহাসচিব কীভাবে নির্বাচিত হন?

জাতিপুঞ্জের মহাসচিব নিরাপত্তা পরিষদের সুপারিশক্রমে সাধারণ সভা কর্তৃক নির্বাচিত হন।

আন্তর্জাতিক আদালত কোথায় অবস্থিত?

আন্তর্জাতিক আদালত নেদারল্যান্ডের হেগ শহরে অবস্থিত।

আন্তর্জাতিক বিচারালয়ে বিচারপতিদের কার্যকালের মেয়াদ কত?

আন্তর্জাতিক বিচারালয়ের বিচারপতিরা ৯ বছরের জন্য নির্বাচিত হন।

আন্তর্জাতিক আদালতের বিচারপতির সংখ্যা কত?

আন্তর্জাতিক আদালতের বিচারপতির সংখ্যা ১৫ জন।

অছি পরিষদ কী?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের যে সংস্থা অছি ব্যবস্থার উদ্দেশ্যকে বাস্তবে রূপদান করে, তাকে অছি পরিষদ বলা হয়।

বর্তমানে অছি পরিষদের সদস্য সংখ্যা কত?

বর্তমানে অছি পরিষদের সদস্য সংখ্যা হল ৫।

অছি ব্যবস্থা কী?

স্বাধীনতা লাভের উপযুক্ত বলে বিবেচিত হলে সম্মিলিত জাতিপুঞ্জ ওইসব অঞ্চলকে স্বাধীনতা প্রদানের যে ব্যবস্থা করে, তাকে অছি ব্যবস্থা বলে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদর কার্যালয় কোথায় অবস্থিত?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সদর কার্যালয় জেনেভায় অবস্থিত।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বর্তমান সদস্য সংখ্যা কত?

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার বর্তমান সদস্য সংখ্যা ১৯৪।

UNESCO কী?

UNESCO- পুরো কথাটি হলো – United Nations Educational Scientific and Cultural Organization I এর উদ্দেশ্য হল শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি প্রভৃতি ক্ষেত্রে সহযােগিতার মাধ্যমে বিশ্বে শান্তি স্থাপনের ব্যবস্থা করা।

UNESCO-র প্রধান উদ্দেশ্য কী?

UNESCO-র প্রধান উদ্দেশ্য হল— শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে সহযােগিতার মাধ্যমে বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় সাহায্য করা।

UNESCO-র কেন্দ্রীয় কার্যালয় কোথায় অবস্থিত?

UNESCO-র কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্যারিসে অবস্থিত।

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থাটি (UNESCO) কবে প্রতিষ্ঠিত হয়?

সম্মিলিত জাতিপুঞ্জের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক সংস্থা (UNESCO) ১৯৪৬ খ্রিস্টাব্দে ৪ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতিষ্ঠিত হয়।

আরও পড়ুন –

স্থানীয় স্বায়ত্তশাসন ব্যাবস্থা MCQ & SAQ (রাষ্ট্রবিজ্ঞান ক্লাস 12)

মিউনিখ চুক্তি কি – টিকা লেখ

Leave a Comment