সমতল দর্পণ কাকে বলে, বৈশিষ্ট্য ও ব্যবহার

সমতল দর্পণ : যে দর্পণের প্রতিফলক পৃষ্ঠ সমতল এবং তাতে আলোর নিয়মিত প্রতিফলন ঘটে, তাকে সমতল দর্পণ বলে |

সমতল দর্পণ

সমতল দর্পণের বৈশিষ্ট্য

সমতল দর্পণের বৈশিষ্ট্য গুলি হল –

  • সমতল দর্পণে আলোর নিয়মিত প্রতিফলন ঘটে।
  • সমতল দর্পণের প্রতিফলক পৃষ্ঠটি মসৃণ ও সমতল হয়।
  • সমতল দর্পণে বিম্বের পার্শ্ব পরিবর্তন ঘটে।
  • দর্পণ থেকে বস্তুর দূরত্ব যত, দর্পণ থেকে বিম্বের দূরত্বও তত।
  • বস্তু ও বিম্ব যে সরলরেখায় অবস্থিত, সেটি দর্পণকে লম্বভাবে ছেদ করে।
  • সমতল দর্পণে সৃষ্ট বিম্ব অসদ ও সোজা হয়।
  • সমতল দর্পণে বিম্বের আকার বস্তুর আকারের সমান হয়।
  • এ দর্পণে লক্ষ্য বস্তুর দূরত্ব ও প্রতিবিম্বের দূরত্ব অসমান থাকে

আরও পড়ুন – লেন্স সম্পর্কিত সমস্ত প্রশ্ন ও উত্তর

সমতল দর্পণের ব্যাবহার

  • সমতল দর্পণ ব্যবহার করে পেরিস্কোপ তৈরি করা হয়।
  • সমতল দর্পণের সাহায্যে আমরা আমাদের চেহারা দেখি।
  • পাহাড়ি রাস্তার বাঁকে দুর্ঘটনা এড়াতে এটি ব্যবহার করা হয়।
  • ওভারহেড প্রজেক্টর, এসএলআর ক্যামেরা, গাড়ির উইং আয়না, অণুবীক্ষণ যন্ত্র প্রভৃতি তে এই দর্পণ এর ব্যাবহার করা হয় ।
  • নাটক, চলচ্চিত্র ইত্যাদির সুটিং এর সময় সমতল দর্পণ দিয়ে আলো প্রতিফলিত করে কোনো স্থানের ঔজ্জ্বল্য বাড়ানো হয়।

সমতল দর্পণের ফোকাস দূরত্ব কত ?

সমতল দর্পণের ফোকাস দূরত্ব অসীম ।

সমতল দর্পণের রৈখিক বিবর্ধন মান কত ?

সমতল দর্পণের রৈখিক বিবর্ধন মান 3.5

সমতল দর্পণ সম্পর্কে বিস্তারিত ভাবে জানতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Comment